বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৯:২৫:১৬

প্রকাশিত : রবিবার, ১২ জুলাই ২০১৫ ১২:০৮:৫৭ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

মেহেরপুরে স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন

পারিবারিক কলহের জের ধরে মেহেরপুর সদর উপজেলার পুরাতন মদনাডাঙ্গা গ্রামের আজিজুর নামের অটোরিকশা চালককে মাথায় আঘাত করে হত্যা করা হয়েছে।

শনিবার মধ্যরাতে নিজ ঘরে তাকে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় স্ত্রী সেলিনা খাতুনকে (৩৬) আটক করেছে পুলিশ। নিহত আজিজুর ঐ গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পুরাতন মদনাডাঙ্গা গ্রামের অটোরিকশা চালক আজিজুর রহমানের সঙ্গে স্ত্রীর তেমন বনিবনা ছিল না। প্রতিবেশী কারও সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কের সন্দেহে স্ত্রীর সঙ্গে তার ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকতো। এর জেরে পয়লা রমজানের দিন স্ত্রী রাগ করে পিতার বাড়ি গাংনী উপজেলার কষবা গ্রামে চলে যান। পারিবারিক সমঝোতায় শনিবার আবারো বাড়িতে আসেন স্ত্রী সেলিনা খাতুন। মধ্যরাতে আজিজুলের চিৎকার শুনে প্রতিবেশী ও বাড়ির লোকজন তার বাড়িতে ছুটে আসেন। আজিজুলকে তারা রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন।

রাতেই তাকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করার কিছুক্ষণ পরে তার মৃত্যু হয়। স্ত্রী লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে তাকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ আজিজুরের পরিবারের।

তবে স্ত্রীর দাবি, মোবাইল চার্জ দিতে গিয়ে খাটের উপর থেকে পড়ে যান আজিজুল। এতে তিনি মাথায় গুরুতর আঘাত পান। তাকে হত্যা করা হয়নি।

মেহেরপুর সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবীব জানান, স্বামী হত্যাকারী সন্দেহে রোববার সকালে নিজ বাড়ি থেকে স্ত্রী সেলিনাকে আটক করা হয়েছে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করবে নিহতের পরিবার। তবে এটি হত্যাকাণ্ড নাকি অন্য কারণে মৃত্যু হয়েছে তা তদন্ত শেষে বোঝা যাবে।

সংবাদটি পঠিতঃ ১৮৭ বার


আরো খবর

    ট্যাগ নিউজ