বৃহস্পতিবার ২১ জুন ২০১৮, ০১:০০:০৬

প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০১৫ ০১:২৯:১৩ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon


রাজন হত্যা: ৫ দিনের রিমান্ডে ইসমাইল

সিলেটে শিশু শেখ সামিউল আলম রাজন হত্যা মামলায় গ্রেফতার ইসমাঈল হোসেন আবুলকে (৩২) পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার সকালে রিমান্ড আবেদনের ওপর শুনানি শেষে এ আবেদন মঞ্জুর করা হয়। সোমবার ভোরে সিলেটের জালালাবাদ থানাধীন লামাকাজি মিরেরগাঁও থেকে ইসমাঈলকে গ্রেফতার করা হয়।

গতকাল সোমবার মামলার প্রধান আসামি মুহিত আলমকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

রিমান্ড আবেদনের ওপর শুনানি শেষে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দ্বিতীয় আদালতের বিচারক ফারহানা ইয়াসমিন মামলার শুনানি শেষে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার অপর আসামি সৌদি আরব প্রবাসী কামরুল ইসলামকে সৌদি আরব থেকে আটক করা হয়েছে। তাকে দেশে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

গত বুধবার সকাল সাতটার দিকে আসামিরা চুরির অভিযোগে শিশু রাজনকে খুঁটিতে বেঁধে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। ময়নাতদন্তের পর রাজনের দেহে ৬৪টি আঘাত পাওয়া গেছে। সোমবার দুপুরে পুলিশের হাতে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পৌঁছায়। প্রতিবেদনে উল্লেখ আছে, আঘাতের কারণে মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণে রাজনের মৃত্যু হয়েছে।

গত ৮ জুলাই বুধবার সকাল সাতটার দিকে সিলেট-সুনামগঞ্জ রোডের কুমারগাঁও বাসস্টেশন এলাকার বড়গাঁওস্থ সুন্দর আলী মার্কেটের একটি ওয়ার্কশপের সামনে রাজনের ওপর অত্যাচার চালানো হয়। এতে সে এক পর্যায়ে মারা যায়। এই দৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিও করে আবার বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রচার করা হয়।

এরপর বেলা পৌনে ১টার দিকে হত্যার পর মাইক্রোবাস যোগে (ঢাকা মেট্টো-চ-৫৪-০৫১৬) রাজনের মরদেহ গুমের চেষ্টার সময় মুহিত আলম নামের একজনকে আটক করে জালালাবাদ থানার পুলিশ। আটকের পর পুলিশের কাছে ১৬১ ধারায় জবানবন্দিতে রাজন হত্যার রোমহর্ষক বর্ণনা দেয় সে।

নিহত রাজন কুমারগাঁও বাসস্টেশন সংলগ্ন সিলেট সদর উপজেলার কান্দিগাঁও ইউনিয়নের বাদে আলী গ্রামের মাইক্রোবাস চালক শেখ আজিজুর রহমানের ছেলে।

এ ব্যাপারে জালালাবাদ থানার পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করেন।

সংবাদটি পঠিতঃ ১৪৬ বার


ট্যাগ নিউজ

সর্বশেষ খবর