মঙ্গলবার ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ১২:০৬:১৭

প্রকাশিত : শুক্রবার, ১৭ জুলাই ২০১৫ ০২:২৬:৩৪ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon


জনপ্রশাসনমন্ত্রী হলেন সৈয়দ আশরাফ

সাইফুল ইসলাম:

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় (এলজিআরডি) হারানোর এক সপ্তাহের মাথায় সৈয়দ আশরাফ নতুন করে এ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেলেন।

গত ৭ জুলাই জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় উপস্থিত না হওয়াকে কেন্দ্র করে সৈয়দ আশরাফকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। ওই সভায় উত্থাপনের জন্য আটটি প্রকল্প ছিল। আর তালিকায় প্রথমেই ছিল স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের ‘অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গুরুত্বপূর্ণ পল্লি অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প’। ওইদিন একনেক সভায় এলজিআরডি মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রী কেউই উপস্থিত ছিলেন না। তাই অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ছয় হাজার কোটি টাকা প্রকল্পটি প্রত্যাহার করার আহ্বান জানান। তবে প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা প্রকল্পটি প্রত্যাহার না করতে বলেন এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে সৈয়দ আশরাফকে অব্যাহতি দেওয়ার কথা বলেন। ওইদিন দেশব্যাপী গুঞ্জন শুরু হয় সৈয়দ আশরাফকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে ৯ জুলাই সেই গুঞ্জনই সত্যি হয়। তাঁকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে অব্যাহতি দিয়ে দপ্তরবিহীন মন্ত্রী করা হয়।

এরপরই সৈয়দ আশরাফ জানান, পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন তিনি। নতুন করে গুঞ্জন রটে তিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদে আর থাকবেন না। এমনকি রাজনীতিই ছেড়ে দিচ্ছেন সৈয়দ আশরাফ। এরই মধ্যে গত ১৪ জুলাই লন্ডনে যাওয়ার কথা থাকলেও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর সেই সফর স্থগিত করা হয়।

এর আগে যুবলীগের এক অনুষ্ঠানে সৈয়দ আশরাফ বলেন, আমার রক্ত কখনও বেঈমানি করে না। আমার বাবা নেতার (বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান) জন্য প্রাণ দিয়েছিলেন।

সংবাদটি পঠিতঃ ১৮৮ বার


আরো খবর

    ট্যাগ নিউজ

    সর্বশেষ খবর